নতুন খবর

দেশের ৫৪৩ লোকসভা আসন থেকে এলো নতুন সার্ভে! পুরোপুরি পরিষ্কার হয়ে গেল ২০১৯ এর ছবি।

আর মাত্র কয়েক মাসের অপেক্ষা। তারপরই সারা দেশজুড়ে হতে চলেছে নির্বাচন অর্থাৎ ২০১৯ লোকসভা নির্বাচন। আগামী বছর ভারতবর্ষে হতে চলেছে ভারতবর্ষের সবথেকে বড় নির্বাচন লোকসভা নির্বাচন। সেই নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে ভারতের প্রায় অনেক গুলি রাজনৈতিক দল। তাদের সবার ভাগ্য নির্ধারণ করা হয় ওই লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলে। আর সেই ভাগ্য নির্ধারণ করে দেশের জনসাধারণ।

সেই চির অপেক্ষিত লোকসভা নির্বাচন হতে আর বেশি দেরী নেই। তাই নির্বাচনের কিছুদিন আগে দেশের এক বৃহৎ হিন্দি সংবাদ মাধ্যম তাদের সার্ভে করে ফেলল। এই সংবাদ মাধ্যম দেশের সবগুলি লোকসভা সিটে অর্থাৎ ৫৪৩ টি লোকসভা সিটের উপর তাদের সার্ভে করেছে। এবং এই সার্ভেতে এটাই উঠে এসেছে যে ভারতীয় জনতা পার্টি এবং কংগ্রেসের মধ্যে জোরদার টক্কর হবে এবারের লোকসভা নির্বাচনে।

সার্ভের ফলাফলে উঠে এসেছে , এবারের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির দখলে থাকবে ৩৪ শতাংশ ভোট অপর দিকে কংগ্রেস পাবে মাত্র ২৫ শতাংশ ভোট। আর যদি আসন সংখ্যার দিক দিয়ে দেখা হয় তাহলে ফলাফলের বিচারে দেখা যাচ্ছে যে, এবারের লোকসভায় একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাচ্ছে বিজেপি সরকার। কারণ বিজেপির দখলে থাকছে ২৭৬ টি আসন, সেখানে কংগ্রেস পেয়েছে মাত্র ১১২ টি আসন, আর বাকি ১২৫ টি আসন পাচ্ছে দেশের অন্যান্য রাজনৈতিক দল গুলি।

আর এই সার্ভের ফলাফলে এটা পরিস্কার যে, ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে ফের একবার দেশের ক্ষমতায় আসতে চলেছে মোদী সরকার। অর্থাৎ নরেন্দ্র মোদীই যে আবার ভারতবর্ষের প্রধানমন্ত্রী হবেন সেটা এই ফলাফলের মাধ্যমেই পরিস্কার হয়ে গিয়েছে। এই ফলাফলের ফলে এটা যেমন পরিস্কার যে দেশে কোন সরকার আসতে চলেছে তেমনই এটাও পরিস্কার হয়ে গিয়েছে যে, এই মুহূর্তে দেশের জনগন বিজেপির কাছে কতটা আশাবাদী। কারণ এর আগে দেশে অনেক সরকার ক্ষমতায় এসেছে কিন্তু কোনো সরকার দেশের জনগণের ভালোর জন্য কোনো বড় পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। দেশের উন্নয়নের কথা কেউ ভাবে নি, সবাই শুধু ক্ষমতায় এসে নিজেদের স্বার্থসিদ্ধি করেছে। কিন্তু ২০১৪ সালে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে একের পর এক ভালো সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশের জনগণের জন্য। দেশ কে সামরিক দিক দিয়ে যেমন উন্নতি করেছে তেমনি শক্তিশালী করেছে অর্থিক দিক দিয়েও।

তবে এবার যে খবর বিশেষ ভাবে সবাই কে প্রভাবিত করছে সেটা হল এবারের লোকসভা নির্বাচনে দেশের মানুষ অনেক কিছু নূতনত্ব দেখতে পাবেন। কারণ এবার ভারতবর্ষের ইতিহাসের সবচেয়ে কঠিন লোকসভা নির্বাচন হতে চলেছে। ইতিমধ্যেই সব রাজনৈতিক দল তাদের নির্বাচনী প্রচার শুরু করে দিয়েছে। কারণ এবার কেউ কাউ কে একটু জমি ছেড়ে দিতে রাজি নন। সবাই চাইছে জয়, কিন্তু সংবাদ মাধ্যম তাদের সার্ভের মাধ্যমে জানিয়ে দিয়েছেন লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল। আর এতে এটাই পরিস্কার যে ফের একবার মোদী সরকার। অর্থাৎ আবার দেশজুড়ে আসতে চলেছে মোদী ঝড়।

একদিকে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী অপরদিকে দেশের একমাত্র জনদরদী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই দুজন এই মুহূর্তে চরম পর্যায়ে নিজেদের প্রচার চালাচ্ছেন। কেউ একটুও জমি ছাড়তে রাজি নয়। এর ফলে এখন থেকেই লোকসভা নির্বাচনের তাপ অনুভব করতে পারছেন দেশের সাধারণ মানুষ। আর এই এত কিছুর মধ্যেও আপনাদের জন্য বিশেষ তথ্য যে, যে দল যেমন ভাবেই নিজেদের প্রচার করুক না কেন। দেশের মানুষের মনে কিন্তু প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীজি একটা আলাদা জায়গা করে নিয়েছেন। আর মোদীজির এই জনপ্রিয়তায় লোকসভা ভোটে বিজেপির পক্ষে অত্যন্ত সুবিধাজনক বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহল।
#অগ্নিপুত্র

Source link

Tags

Related Articles

Close