ভারতবর্ষ

জেতার পরেও সমস্যায় রাহুল গান্ধী! মুখ্যমন্ত্রী পদে কে বসবে এই নিয়ে দ্বন্দ্ব শুরু কংগ্রেসের মধ্যে। |

রাজস্থানের বিধানসভা নির্বাচনের পরিণামসামনে চলে এসেছে। এটা নিশ্চিত যে এই প্রদেশে পরবর্তী সরকার কংগ্রেস গঠন করবে। তবে কংগ্রেসের জন্য এখন সবথেকে বড়ো সমস্যা এটাই যে মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য কাকে নির্বাচন করা হবে। মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য রাজস্থানে দুইজন কংগ্রেস নেতা প্রবল দাবিদার হয়ে উঠেছেন। তাদের মধ্যে একজন হলেন শচীন পাইলট ও অশোক গেলহাট। যদিও দ্রুতগতিতে চলা কার্যক্রম দেখে মনে করা হচ্ছে যে কংগ্রেস গহলেটকে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ফাইনাল করার নিয়েছেন। সাচীন পাইলেটকে মানানোর জন্য কংগ্রেস দূত পাঠানোর ব্যাবস্থা করছে। রাহুল গান্ধীর জন্য মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচন করা খুব কঠিন হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

কারণ রাজস্থানে কংগ্রেসের দুই নেতাই নিজের ক্ষমতায় বড়ো নেতা হয়েছেন। একদিকে রয়েছে শচীন পাইলেট যার কাছে যুব শক্তির সমর্থন রয়েছে অন্যদিকে রয়েছে অশোক যার কাছে দীর্ঘ সময়ের রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা রয়েছে। জানিয়ে দি, রাজস্থানে শচীন পাইলট এমন একজন নেতা যিনি রাজস্থানে বিজেপিকে টক্কর দিয়ে কংগ্রেসকে মজবুত করেছে।

কিন্তু অশোক গেলহট এর অভিজ্ঞতার জন্য কংগ্রেস আবার উনাকে মুখ্যমন্ত্রী পদে বসানোর জন্য পরিকল্পনা করছে। তবে কংগ্রেস ভবিষ্যতের কথা ভেবে কোনোভাবেই শচীন পাইলেটকে দূরে সরানোর কথা ভাবতে পারছে না। অশোক গান্ধী পরিবারের খুব ঘনিষ্ঠ একজন ব্যক্তি, সেই সূত্রেও কংগ্রেস উনাকে মুখ্যমন্ত্রী পদ দেওয়ার সিধান্ত নিয়েছে।

কিন্তু শচীন যেভাবে পার্টির প্রতি নিজেকে সমর্পিত করেছিল সেই মূল্য পাচ্ছেন না বলে তার সমর্থকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। তাদের দাবি মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য শচীনকে বসানোর হোক। কারণ এর আগে অশোক একবার মুখ্যমন্ত্রী পদে ছিলেন, জনগণও নতুন মুখ দেখার আশায় রয়েছে। অবশ্য এটাও সত্য যে পার্টির কার্যকর্তা বা অন্যান্য কারোর মতে কিছু এসে যায় না, পুরোটাই গান্ধী পরিবারের মতে হবে।

Related Articles

Close