নতুন খবর

“পশ্চিমবাংলায় বিজেপি এলে তবেই আমাদের স্বপ্নপূরণ হবে”- শাহনওয়াজ়, বিজেপি নেতা।


“বাংলার সংবিধান কি শুধুই তৃণমূলের ? এখানে তো একমাত্র দিদির আইন চলে।সংবিধানের কোনো জায়গা নেই এ রাজ্যে।এখনকার পুলিশ অইন মানে না।বিজেপি কোনো সভা করতে চাইলে তার অনুমতি পাই না ।মিথ্যা মামলা দেওয়া হয় সভা করলে ।শুধু মাত্র বিজেপি করার অপরাধে যদি দিদি জেল এ দেয় তাহলে তো অনেক বড় জেল বানাতে হবে এবার দিদিকে। কারণ দিদির কাছে অপরাধী তো এবার সমগ্র বাংলা ।সমস্ত বাংলায় যে এবার বিজেপি র হয়ে লড়তে চলেছে।”- দলীয় কর্মসূচির সংক্রান্তে ঝাড়খন্ড এর ডাকা যাবার পথে আসানসোল এ সাংবাদিক দের মুখোমুখি হয়ে একথা জানিয়েছেন বিজেপির মুখ্যপাত্র শহণওয়াজ হুসেন।

শনিবার দিন দুপুরে আসানসোলের এক বেসরকারি ভোজসভায়( banquet hall) এ সাংবাদিক দের মুখোমুখি হন তিনি।এ বিষয়ে এ তিনি জানান যে রাজ্যে বিজেপি করলে তাকে “ঝাড়খন্ডি” তকমা দেওয়া হয়। অভিযোগ এর আঙ্গুল তোলা হচ্ছে বিজেপির দিকে। বিজেপি কর্মীরাই নাকি ঝাড়খন্ড থেকে বহিরাগতদের এনে রাজ্যে অশান্তির সৃষ্টি করছে। শহনওয়াজ। এর প্রশ্ন তার সাথে দাঁড়ানো কটা কর্মী ঝাড়খণ্ডের ? তারা সকলেই ১৬ আনাই খাঁটি বাঙালি।

দিলিপবাবু,মুকুলবাবু,রাহুলবাবু সকলেই তো বাঙালি।আর আমিও তো অর্ধেক বাঙালি ।বাংলার মানুষ কে বার বার করে ঝাড়খণ্ডী বলা তো তাদের অপমান করা ছাড়া কিছুই না ।আগামী বিধানসভা ভোট নিয়ে তাঁকে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান রাজস্থান,ছাত্রিশগড় ও মধ্যপ্রদেশ এ জনতা দলের জয় নিশ্চিত।বিজেপির নামে যতই অপপ্রচার চালানো হোক জয় সত্যের ই হবে । গতবারের ভোটে বিজেপি র সদস্য সংখ্যা ছিল ৪ কোটি বর্তমানে তা হয়েছে ১০ কোটি।

১৯ টি রাজ্যের শাসন ক্ষমতা প্রাপ্ত দল এখন বিজেপি।এই শক্তিশালী দলের সাথে লড়তে হবে বিরোধীদের ।ত্রিপুরার মানিক সরকারের সরকারকে সরানো হয়েছে দিদিকে সারাতেও বেশি সময় লাগবে না । শ্যামাপ্রসাদ মুখ্যাপাধ্যায় এর রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় এলেই এই স্বপ্ন পূরণ হবে।তবে শুধু শাহনওয়াজ় নয়, বিজেপির সভাপতি অমিত শাহজিও এই ধরণের মন্তব্য আগে করেছিলেন। এক সময় অটলবিহারী বাজপেয়ী বলতেন বাংলা যেদিন গেরুয়ার মর্ম বুঝবে সেদিন বাংলা আবার দেশকে পথ দেখাবে। এখন অটলজির সেই স্বপ্ন পূরণের জন্য বেরিয়ে পড়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা।

Tags

Related Articles

Close