নতুন খবর

কেরলের বন্যায় দুর্গতদের পাশে দাঁড়িয়ে হিন্দু মন্দির দান করলো ১ কোটি টাকা।


বাড়ির গুরুজনেরা বলেন, বিপদের সময় কে কেমন মানুষ তা চেনা যায়। আজ কেরলে যখন প্রবল বন্যা তখন কেরালার মানুষ ভারতের বিভিন্ন পার্টি, দল, সেনা ওস সংগঠনগুলির আসল রূপ নিজের চোখে দেখতে পাচ্ছে। আজ কেরলের বিপদের সময় দেশের কিছু মানুষ উদ্ধারকাজে নেমে পড়েছে তো কিছু মানুষ অনলাইনে দান জমা করার কাজে লেগে পড়েছে। কেন্দ্র সরকার আর্মি জোয়ান, এযার ফোর্স,নেভি, কোস্ট গার্ড ও NDRF এর টিম নামিয়ে দিয়েছে। একই সাথে রাষ্ট্রীয় সয়ংসেবক সঙ্ঘ (RSS) ২০,০০০ সয়ংসেবককে উদ্ধারকাজ ও সেবায় নামিয়েছে। উদ্ধার কাজে ইতিমধ্যে ১ জন সয়ংসেবকের প্রাণও চলে গেছে। অন্যদিকে কংগ্রেস পার্টি ও বামপন্থীরা সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদী, বিজেপি ও RSS কে গলাগলি করতে লেগে পড়েছে।

কেরালায় খ্রিস্টান মিশনারি খুব এক্টিভভাবে ধর্মান্তরনের কাজ করতো তাদেরকে এই বন্যায় খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। মিশনারিরা দাবি করতো যীশুস সমস্ত রোগ ব্যাধি, প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে রক্ষা করবে কিন্তু সেই যীশুশ তো প্রথম দিন থেকে কোথায় যেন উধাও হয়ে গেছে। আপনাদের জানিয়ে দি, কেরালায় ও কর্ণাটকে সবথেকে বেশি অত্যাচারিত হয় হিন্দু সমাজ তার কারণ একটাই এই রাজ্য স্বাধীনতার পর থেকেই বামপন্থী ও কংগ্রেসের কব্জায় রয়েছে।

আপনাদের আরো জানিয়ে দি, কর্ণাটকের উডুপি জেলার কল্লোর মোকম্বিকা মন্দির মোকম্বিকা মন্দির কেরালার বন্যার জন্যে ১ কোটি টাকা দান করেছে। শুধু এই নয়, কর্ণাটকের কিছু এলাকা বন্যায় বিপর্যস্ত হয়েছে সেখানেও ২৫ লক্ষ টাকা দান করেছে। এই মন্দির মাতা লক্ষীদেবীর মন্দির যিনি কেরলের জন্য ১ লক্ষ তো কর্ণাটকের কিছু অংশের জন্য ২৫ লক্ষ টাকা দান করেছেন। আজ হিন্দু ধর্ম সক্রিয়ভাবে কেরলের বন্যায় দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে।

যে সেনাকে বামপন্থীরা ধর্ষণকারী বলে অপমান করতো তারাই আজ দেবদূত হয়ে বামশাসিত রাজ্যের জনগণকে উদ্ধার করছে, যে আরএসএস(RSS) সয়ংসেবকদের বামপন্থীরা জঙ্গি, সন্ত্রাসী বলে আখ্যা দিত তারাই আজ জনগণের সেবায় নিজেদের সমর্পিত করেছে। অন্যদিকে মিশনারি ও কট্টরপন্থী সগঠন যেগুলোর দালালি করে বামপন্থীরা ও কংগ্রেসিরা সময় পার করে তারা বিপদের সময় উধাও হয়ে গিয়েছে।

The post কেরলের বন্যায় দুর্গতদের পাশে দাঁড়িয়ে হিন্দু মন্দির দান করলো ১ কোটি টাকা। appeared first on India Rag.



24 Ghanta

24 Ghanta Live News

Tags

Related Articles

One Comment

Close